• শুক্রবার, ১৭ মে ২০২৪, ০৪:৪৯ অপরাহ্ন

দৌলতপুরে এনএসআই’র কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে প্রতারণা

নিজস্ব সংবাদদাতা / ৪২ Time View
Update : বুধবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২৩

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে এনএসআই কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে প্রতারণা ও চাঁদা দাবী করায় রেজওয়ান হোসেন নামে এক যুবককে এলাকাবাসী আটক করে পুলিশে দিলে পুলিশ তাকে ছেড়ে দিয়েছে।

রবিবার সন্ধ্যায় উপজেলার প্রাগপুর ইউনিয়নের প্রাগপুর দাসপাড়ায় পূজা মন্ডপের পাশের একটি বাগানে এ ঘটনা ঘটে। এনএসআই কর্মকর্তা পরিচয় দানকারী ভুয়া কর্মকর্তা রেজওয়ান (২৪) দৌলতপুর উপজেলার আদাবাড়িয়া ইউনিয়নের গরুড়া পালপাড়া গ্রামের মনিরুল ইসলামের ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, প্রাগপুর দাসপাড়ায় পূজা মন্ডপের পাশের একটি বাগানে একদল যুবক পিকনিক করছিল। এসময় রেজওয়ান ঘটনাস্থলে গিয়ে এনএসআই কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে তাদের ওপর চড়াও হয় এবং কয়েকজনকে চড় থাপ্পড় মেরে তাদের কাছে মোটা অংকের চাঁদা দাবী করে। পরে তারা পরিচয়পত্র দেখতে চাইলে এনএসআইয়ের ভুয়া কর্মকর্তা রেজওয়ান কম্পিউটারে কম্পোজ করা একটি কার্ড বের করে দেখায়। ঘটনাস্থলে উপস্থিত যুবকদের সন্দেহ হলে তাকে আটক করে পার্শ্ববতী তেকালা ক্যাম্পের পুলিশকে খবর দেয়।

খবর পেয়ে তেকালা পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই ইবাদত হোসেন ঘটনাস্থল থেকে এনএসআইয়ের ভুয়া কর্মকর্তা রেজওয়ানকে আটক করে ক্যাম্পে নিয়ে মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে তাকে ছেড়ে দেয়।

এ বিষয়ে প্রাগপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আশরাফুজ্জামান মুকুল সরকার বলেন, এলাকার কিছু ছেলে পিকনিক করছিল। এমন সময় রেজওয়ান নামে এক যুবক এনএসআই কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে তাদেরকে মারধর করে টাকা দাবী করে। এতে এলাকাবাসীর সন্দেহ হলে ওই যুবককে আটক করে তেকালা পুলিশ ক্যাম্পে সোপর্দ করে।

তেকালা পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ ইবাদত হোসেন জানান, একটি ছেলে এনএসআই কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে সেখানে উপস্থিত হয়েছিল। এলাকাবাসী তাকে আটক করে আমাকে খবর দিলে আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে ওসি স্যারের সাথে কথা বলে ওই যুবককে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করি।

এনএসআইয়ের ভুয়া কর্মকর্তা রেজওয়ানকে আটকের বিষয়ে কিছু জানেন না বলে গণমাধ্যম কর্মীদের জানিয়েছেন দৌলতপুর থানার ওসি রফিকুল ইসলাম। তবে ভেড়ামারা সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহসিন আল-মুরাদ জানান, ঘটনা সম্পর্কে আমি অবগত ছিলাম না, আপনাদের মাধ্যমে প্রথম শুনলাম, তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সরকারী গোয়েন্দা সংস্থার পরিচয় দিয়ে চাঁদাবাজি ও প্রতারণাকালে এনএসআইয়ের ভুয়া কর্মকর্তা রেজওয়ান নামের ওই যুবককে আটকের পর পুলিশ তাকে ছেড়ে দেওয়ায় এলাকাবাসীর মাঝে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। একইসাথে তারা তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানিয়েছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ