• রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ০৪:২৫ অপরাহ্ন

কুমারখালীতে নৌকা বাইচ এর নামে জুয়া

অনলাইন ডেক্স / ৪৫ Time View
Update : সোমবার, ৯ অক্টোবর, ২০২৩

কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার জগন্নাথপুর ইউনিয়নের চর জগন্নাথপুর গ্রামে পদ্মানদীর কোলে অবৈধভাবে চলছে নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতা। আর পাড়ে গ্রামীণ মেলায় প্রকাশ্যে চলছে জুয়া ও মানুষ পুতুল নাচ। আয়োজকদের দাবি, গত তিনদিন (শুক্রবার) থেকে এভাবে চললে। প্রশাসন সবকিছু জানে।

রোববার (৮ অক্টোরব) বিকেলে সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, পদ্মীনদীর কোলে নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতা চলছে। সেখানে উৎসুক জনতার ভিড়। আর সন্ধ্যায় ডিঙ্গি নৌকায় কোল পাড়ি দিয়ে গিয়ে দেখা যায়, পাড়ে বসেছে গ্রামীণ মেলা। প্রকাশ্যে আট থেকে দশটি স্থানে চলছে জুয়ার আসর। নানাবয়সি মানুষ মেতেছেন জুয়া খেলায়। দুরে মাঠের ভিতরে পুতুল নাচের ঘর করা হয়েছে।

এসময় নাম প্রকাশে অনুচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি জানান, দিনে রাতে ২৪ ঘণ্টা চলছে খড় গুটি, বউ-ইলিশ, চরকিসহ বিভিন্ন নামে জুয়ার আসর। রাত হলেই চলে পুতুল নাচের আড়ালে অশ্লীল নৃত্য।

জানা গেছে, জগন্নাথপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল বাকী বাদশার নেতৃত্বে মেলা পরিচালনা করছেন ১ নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বর মো. আবুল কাশেম।

জানতে চাইলে ফোনে আবুল কাশেম বলেন, মেলায় এতু আতটু জুয়া খেলা হয়েই থাকে। তিন দিন ধরে চলছে। আরো দুদিন চলবে। বাদশা চেয়ারম্যান প্রতিদিনই মেলায় আসে। পুলিশ সব জানে। এই বলে ফোন কেটে দেন।

কুমারখালীতে নৌকা বাইচ এর নামে জুয়া, পুতুল নাচ চলছে তিনদিন ধরে

অভিযোগ অস্বীকার করে চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল বাকী বাদশা জানান, তিনি কিছুই জানেন না। সবকিছু কাশেম মেম্বর করছে। প্রশাসনকে না জানিয়ে কিছু হয়!

অভিযোগ অস্বীকার করে থানার ওসি মো. আকিবুল ইসলাম বলেন, পুলিশের অজান্তে এগুলো হতে পাড়ে। এখনই টিম পাঠানো হচ্ছে।

ইউএনও বিতান কুমার মন্ডল জানান, তিন দিন আগেই নৌকা বাইচ খেলা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তা চলার কথা নয়। আর জুয়া খেলার কোনো সুযোগ নেই। এখনই আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ