• শুক্রবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৮:৩০ পূর্বাহ্ন

স্ত্রী হত্যা মামলায় স্বামীর যাবজ্জীবন

নিজস্ব সংবাদদাতা / ৯ Time View
Update : শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০২৩

কুষ্টিয়া সদর থানার স্ত্রী হত্যা মামলায় রনি হোসেন (৩৯) নামে একজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। বৃহষ্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টায় কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ বিশেষ আদালতের বিচারক মো: আশরাফুল ইসলামের আদালত দন্ডপ্রাপ্ত আসামীর উপস্থিতিতে জনাকীর্ণ আদালতে এই রায় দেন। রায়ে কারাদণ্ডসহ ১০হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬মাসের সাজার আদেশ দেন আদালত।

যাবজ্জীবন সাজা প্রাপ্ত হলেন- কুষ্টিয়া সদর উপজেলার বটতৈল ৪মাইল এলাকার বাসিন্দা মৃত: আলতাফ হোসেনের ছেলে মো: রনি হোসেন (৩৯)। এ মামলায় অপর আসামী সাজাপ্রাপ্ত রনির মা লিলি খাতুনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমানিত না হওয়ায় তাকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০২২ সালের ১৫ জুন বিকেল সাড়ে ৪টায় মিরপুর উপজেলার তাঁতিবন্দ গ্রামের আজিম মৃধার কণ্যা দুই সন্তানের মা রত্মা খাতুন(৩৫)কে, আসামী রনি তার গ্রামের বাড়ি বটতৈল ৪মাইল এলাকা হতে মার্কেট করে দেয়ার নাম করে কুষ্টিয়া শহরের কোর্টপাড়ায় রনির মা লিলি খাতুনের ভাড়া বাসায় নিয়ে আসে। সেখানে পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী রনি তার স্ত্রী রত্না খাতুনের গলাটিপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে।

নেশাগ্রস্ত ও জুয়ারী রনির সাথে দাম্পত্য কলহ ছিলো রত্না খাতুনের। এঘটনায় পরদিন ১৬ জুন নিহতের ছোট ভাই মো: বিশাল হোসেন বোন রত্না খাতুনকে হত্যার অভিযোগ এনে নিহত রত্নার স্বামী রনি ও শাশুড়ী লিলি খাতুনের বিরুদ্ধে সদর থানায় মামলা করেন।

মামলাটি তদন্ত শেষে ২০২২ সালের ৩১ আগষ্ট এজাহার নামীয় দুই জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে সদর থানার পুলিশ উপ পরিদর্শক মো: আব্দুল কাদের চার্জশীট দেয় আদালতে।

কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ বিশেষ আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের কৌসুলি এ্যাড. রফিকুল ইসলাম লালন জানান, ‘সদর স্ত্রী রত্না হত্যা মামলায় জড়িত আসামাী রনির বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগে স্বাক্ষ্য শুনানী শেষে সন্দেহাতীত ভাবে প্রমানিত হওয়ায় তাকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ডসহ ১০হাজার টাকা অর্থ দন্ডাদেশ অনাদায়ে আরও ৬মাসের সাজা দন্ডাদেশ দিয়েছেন বিজ্ঞ আদালত। এমামলায় অপর আসামী লিলি খাতুনের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমানিত না হওয়ায় তাকে বেকসুর খালাস দিয়েছে আদালত।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ