• রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:০৯ অপরাহ্ন

খোকসায় ২৪ ঘন্টায় ৫জনকে সাপে কেটেছে

নিজস্ব সংবাদদাতা / ৩১ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ১৭ আগস্ট, ২০২৩

বর্ষায় নদী ও খাল-বিলে পানি বৃদ্ধির সাথে সাথে বিষধর সাপের উপদ্রব বৃদ্ধি পেয়েছে। ২৪ ঘন্টায় পাঁচ নারী-পুরুষ সাপের কামড়ে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলার পদ্মানদী তীরের গোপগ্রাম, আমবাড়িয়া, শোমসপুর ও শিমুলিয়া ইউনিয়নে এসব নারী-পুরুষ সাপের আক্রমনের শিকার হয়েছেন। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার দিনগত রাত সাড়ে ৮টার দিকে গোপগ্রাম ইউনিয়নের সন্তোষপুর গ্রামের রোহান (১৮) নামে এক ছাত্রকে বিষধর সাপের কামড়ে অসুস্থ্য অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। পরে তাকে ফরিদপুর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। বুধবার সকাল সারে ৭টায় সাপের কামড়ে আহত হয় রুহুল আমিন (৫০)। সে চকহরিপুর গ্রামের মকছেদ আলীর ছেলে। বেলা ৩টার পর ঝর্ণা (৩০) নামের অপর এক নারীকে হাসপাতালে আনা হয়। বিকালে আমবাড়ীয়া গ্রামের এলো প্রামানিকের স্ত্রী সালমা (৩৫) সাপের কামড়ে অসুস্থ্য অবস্থায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। পরে তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সন্ধ্যা পৌনে ৭ টার দিকে গোপগ্রাম ইউনিয়নের বাবুর স্ত্রী শ্রাবণী (২১) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিবাগে আনা হয়। এসব রোগীর মধ্যে কয়েক জনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। আহতরা সবাই নিজবাড়ি থেকে সাপের আক্রমনের শিকার হন। বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ ইফফাত জাহান তনুজা বলেন, বৃষ্টির পানিতে অধিকাংশ ডোবা নালা ভরে গেছে। সাপ ও অন্যান্য পোকামাকড় ঘরবাড়িতে আশ্রয় নিচ্ছে। ফলে শেষ ২৪ ঘন্টায় সাপে কাটা রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। যারা হাসপাতালে এসেছে তারা সবাই ভালো আছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ